ইংল্যান্ডকে ৩-১ সিরিজ হারিয়ে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে ভারত

ইংল্যান্ডকে ৩-১ সিরিজ হারিয়ে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে ভারত

টিম যুগান্তর: শনিবার আহমেদাবাদে ইংল্যান্ডকে ৩-১ সিরিজ হারিয়ে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে চলে গেলো ভারত। জুন মাসে লর্ডসে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে প্রথম বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল। সেখানে বিরাট কোহলি অ্যান্ড কোম্পানি মুখোমুখি হবে নিউজিল্যান্ডের।

২০১৯ সালে শুরু হয় এই প্রতিযোগিতা। মাঝে করোনা ভাইরাস অতিমারীর জন্য ২০২০ সালে আন্তর্জাতিক খেলা বন্ধ ছিল প্রায় সারা পৃথিবী জুড়ে। ২০২০ সালের শেষদিক থেকে আবার আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলা শুরু হয়। এই সময়ে অনেকগুলি খেলা পরিত্যক্ত হওয়ায় আইসিসি এই প্রতিযোগিতার পয়েন্ট সিস্টেমে পরিবর্তন আনতে বাধ্য হয়।

নতুন পয়েন্ট সিস্টেম অনুযায়ী ৭০ শতাংশ পয়েন্ট পেয়ে নিউজিল্যান্ড প্রথম দল হিসেবে এই প্রতিযোগিতার ফাইনালে নিজেদের জায়গা পাকা করে ফেলেছিল। আরেকটি ফাইনালিস্ট দল কে হবে তা নির্ভর করছিল ভারত বনাম ইংল্যান্ড সিরিজের ওপরে। ভারতের সামনে সুযোগ ছিল ঘরের মাঠে ইংল্যান্ডকে সিরিজে হারিয়ে ফাইনালে পৌঁছোনোর। ভারত বনাম ইংল্যান্ড সিরিজ ড্র হলে বা ইংল্যান্ড কম ব্যবধানে সিরিজ জিতলে ৬৯.২ শতাংশ পয়েন্ট অর্জনকারী অস্ট্রেলিয়া সরাসরি ফাইনালে চলে যেতো। আবার ইংল্যান্ড বড় ব্যবধানে এই সিরিজ জিততে পারলে তাদেরও সুযোগ ছিল এই প্রতিযোগিতার ফাইনালে খেলার। তবে এইসব হিসেবনিকেশকে দূরে সরিয়ে দিয়ে ৩-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতে ৭২.২ শতাংশ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে থেকে কেন উইলিয়ামসদের বিরূদ্ধে ‘ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ’ ফাইনাল খেলতে নামবে কোহলিরা।

ইংল্যান্ডের বিরূদ্ধে এই সিরিজে ভারতীয় স্পিনারদের সাফল্য চোখে পড়ার মতো। রবিচন্দ্রন অশ্বিন ৪ টি টেস্টই খেলে একাই ৩২ টি উইকেট তুলে নিয়ে সিরিজের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন। ৩২ উইকেটের পাশাপাশি ব্যাট হাতেও তিনি এই সিরিজে সফল। এছাড়া, ৪টি টেস্টের সিরিজে ৩০-এর অধিক উইকেট নেওয়া এবং তার সাথেই একটি শতরানও করা একমাত্র খেলোয়াড় তিনিই।

আবার, ৩টি ম্যাচ খেলে ২৭টি উইকেট নিয়ে ভারতীয় হিসেবে অভিষেক টেস্ট সিরিজে সর্বাধিক উইকেট নেওয়ার রেকর্ড ছুঁয়ে ফেললেন অক্সর প্যাটেল। ১৯৭৯ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিরূদ্ধে টেস্ট সিরিজে দিলীপ দোশি এই রেকর্ড করেছিলেন।

শেয়ার করুন

0Shares
0
মাঠ ময়দান সাম্প্রতিক